শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন
ঘোষনা :
আন্দোলনের ডাক ডটকমে আপনাকে স্বাগতম , সর্বশেষ সংবাদ জানতে  আন্দোলনের ডাক ডটকমের সাথে থাকুন । আন্দোলনের ডাক ডটকমের জন্য  সকল জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহী প্রার্থীগণ জীবন বৃত্তান্ত, পাসপোর্ট সাইজের ১কপি ছবি ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রসহ ই-মেইল পাঠাতে পারেন। শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ যে কোন বিশ্ববিদ্যালয় হতে স্নাতক পাস এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে অধ্যয়নরত ছাত্র/ছাত্রীগণও আবেদন করতে পারবেন।   আবেদন প্রেরণের প্রক্রিয়াঃ  ই-মেইল: , প্রয়োজনে মোবাইলঃ  

নাটোরের বড়াইগ্রামে নারীর প্রতি কটুক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ / ২৩৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন

নাটোরের বড়াইগ্রামে নারীর প্রতি কটুক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন

বিশেষ  প্রতিনিধি

নাটোরের বড়াইগ্রামে নারীর প্রতি কটুক্তির প্রতিবাদ ও বনপাড়া খ্রীষ্টান ক্রেডিট ইউনিয়ন কো-অপোরেটিভ নির্বাচনে কটুক্তিকারীর প্রার্থীতা বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে বনপাড়া খ্রীষ্টিয় চার্চের সামনে খ্রীষ্টান কো-অপারেটিভ ইউনিয়নের নারী সদস্যরা এই কর্মূচীর আয়োজন করে। ঘন্টাব্যাপি এই মানববন্ধনে কয়েকশত নারীরা অংশ গ্রহন করে।

নারী নেত্রী মিসেস চম্পা অভিযোগ করে বলেন, খ্রীষ্টান ক্রেডিট ইউনিয়ন কো-অপোরেটিভ নির্বাচনে বাবলু-মহাবীর-কাকলী-অনীল-শান্ত ও ইউজিন পরিষদ থেকে বোর্ড সদস্য প্রার্থী হন সাংবাদিক নাম ধারী ওমর ডি কস্তা। সস্পতি তিনি একটি অনুষ্ঠানে বলেন, আমি বড়াইগ্রাম কেন্দ্রীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি এবং উপজেলা আইনশৃংখলা রক্ষা কমিটির সদস্য। আমার পুলিশের নিকট থেকে আসামী ছাড়াতে ঘুস লাগেনা। আপনারা মদ বানান মদ খান এবং আমাদেরকে খাওয়ান। পুলিশ ধরলে ছাড়ানো জন্য আমি আছি। মুলত তিনি বড়াইগ্রাম কেন্দ্রীয় প্রেসক্লাবে সভাপতি কিন্তু উপজেলা আইনশৃংখলা রক্ষা কমিটির সদস্য নন। গত ১৭ তারিখে ওমর ডি কস্তা ছবি সহ ফেসবুকে একটি পোষ্ট দেন। সেখানে এক নারী কমেন্ট করেন মদ খাওয়ার আগে না মদ খাওয়ার পরে। ওমর ডি কস্তা পাল্টা কমেন্টে তাকে থাপ্পর মাড়তে চান এবং বেয়াদব বলে গালী দেন। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একজন নারীকে এভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে পারেন না।

তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহন করেছেন তখন তিনি একজন নির্বাচনে প্রার্থী এবং একজন সাংবাদিক নাম পরিচয় দিয়ে প্রকাশ্যে মাদকের পক্ষে বক্তৃতা করতে পারেন না।

ওমর ডি কস্তা বলেন, আমি বড়াইগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি নই ,আমি বড়াইগ্রাম কেন্দ্রীয় প্রেসক্লাবে সভাপতি। পুলিশকে কন্ট্রোল করার যোগ্যতা বড়াইগ্রাম কেন্দ্রীয় প্রেসক্লাবের সভাপতির আছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, তিনি উপজেলা আইনশৃংখলা রক্ষা কমিটি সদস্য নন। তিনি একজন সাংবাদিক হয়ে মাদ তৈরীর ও মদ পানের পক্ষে কিভাবে এই ধরনের কথা বলতে পারে।

বনপাড়া ধর্ম পল্লীর পাল পুরোহিত ফাদার বিকাশ হিউবার্ট রিবেরু বলেন, বিষয়টি নিয়ে মিমাংসার লক্ষে স্থানীয় ভাবে বসা হয়েছিল। সেখানে ওমর ডি কস্তা দুঃখ প্রকাশ করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর