শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৯:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
করোণা মোকাবেলায় সচেতন করছে জাসদ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী প্লাবন। কুমারখালীতে কঠোর বিধিনিষেধ বাড়িয়েছে করোনা, নাগরিক কমিটির উদ্বেগ আক্রান্ত-৮৭ কুমারখালীতে একাধিক মামলার আসামীকে গায়েবী মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ পাটগ্রামে অসহায় আব্বাস আলীর চোখের চিকিৎসা খরচ যোগাতে পাশে দাঁড়ালেন মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটি পাটগ্রামে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে প্রতিবেশী শ্বশুর- বউমা উধাও! মিরপুর পৌর এলাকা ৭ দিনের সর্বাত্মক লকডাউন খোকসায় যুদ্ধকালীন সময়ের পরিত্যক্ত গ্রেনেড উদ্ধার হয়েছে। সাধারণ জনগণকে বোকা বানিয়ে অর্থনৈতীক শোষণ করা হচ্ছে না তোঃপ্লাবন। মেহেরপুরে High flow oxygen canal উপহার দেওয়াই প্লাবনের শুভেচ্ছা পরিবর্তনের মেহেরপুরের এ্যাডমিন সাইদুর রহমান এর সাথে সহমত পোষণ করলেনঃপ্লাবন।
ঘোষনা :
আন্দোলনের ডাক ডটকমে আপনাকে স্বাগতম , সর্বশেষ সংবাদ জানতে  আন্দোলনের ডাক ডটকমের সাথে থাকুন । আন্দোলনের ডাক ডটকমের জন্য  সকল জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহী প্রার্থীগণ জীবন বৃত্তান্ত, পাসপোর্ট সাইজের ১কপি ছবি ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রসহ ই-মেইল পাঠাতে পারেন। শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ যে কোন বিশ্ববিদ্যালয় হতে স্নাতক পাস এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে অধ্যয়নরত ছাত্র/ছাত্রীগণও আবেদন করতে পারবেন।   আবেদন প্রেরণের প্রক্রিয়াঃ  ই-মেইল: , প্রয়োজনে মোবাইলঃ  




৯৮সাল থেকে- ঐক্য, শান্তি, আস্থার প্রতীক ‌‌কাউন্সিলর মাহাবুব আলম বিশ্বাস

বাবলু মোস্তাফিজ, সম্পাদকঃ আন্দোলনের ডাক.কম / ১১৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৯:২৫ পূর্বাহ্ন




[৯৮সাল থেকে- ঐক্য, শান্তি, আস্থার প্রতীক ‌‌কাউন্সিলর মাহাবুব আলম বিশ্বাস]

আলোচনা সভা রূপ নিলো সমাবেশে!

| বাবলু মোস্তাফিজ |

সেই ১৯৯৮ সাল। বয়সে সে তখন অনেকটাই নবীন। নির্বাচনের মাঠে মানুষের দ্বারে, দ্বারে গিয়ে বলেছিলেন, আমি আপনাদেরই লোক। আমি আপনাদের সুখ-দুঃখের ভাগীদার হতে চাই। আপনাদের খেদমত করতে চাই। সেবক হতে চাই। এলাকার সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে, সমাধান করতে চাই।

কথা রাখতে পারি কিনা একটি বার সুযোগ দিয়ে দেখুন না!

কাউন্সিলর পদে দাড়িয়ে এই কথা গুলোই সেইদিন বলেছিলেন।

-আজকের সময়ে পৌরসভার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয়, দক্ষ কাউন্সিলর আলহাজ্ব মাহাবুব আলম বিশ্বাস।

নবীন, তরুণ বয়সে তার ছিল আলাদা একটি স্বতন্ত্র ব্যক্তিত্ব। তার কথা বিশ্বাস করে ওয়ার্ডের মানুষেরা এক কথায় জনপ্রতিনিধি বানিয়েছিল।

সাধারণ মানুষ তার উপরে ভরসা রেখেছিলো, বিশ্বাস করেছিল, সে বিশ্বাসের মর্যাদা তিনি শুধু পালনই করেননি, বিশ্বাসের অনেক, অনেক গভীরে পৌছিয়ে দিয়েছেন। মাঝে কেটে গেছে ২২টি বছর।
এর মধ্যে চারবার বিপুল ভোটে নির্বাচিত করেছেন এলাকাবাসী নিঃসংকোচে নির্দ্বিধায়।

আবারও নিয়মমাফিক নির্বাচন দোড়গোড়ায়। এখন দৃশ্যপট অনেকটাই পাল্টে গেছে। প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর মাহাবুব আলম বিশ্বাস কে, আর বলতে হয় না আমি তোমাদেরই লোক। বলতে হয় না, আমাকে একটিবার বিশ্বাস করে দেখুন। বলতে হয় না আমি ভুল করেছি -আরেকবার সুযোগ দিন। একথা বলতে হয়না-আমি কথা রাখতে পারি কিনা, বা আর একটি বার সুযোগ দিয়ে দেখুন।

আজকের দিনে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় বা এভাবে বলা যায়, এলাকার মানুষ এখন বলে, আমি মাহাবুলের লোক। মাহাবুল কে আমরা আমাদের কাছে রেখে দিতে চাই। মাহাবুল আমাদের বন্ধু, অভিভাবক, জনপ্রতিনিধি। মাহাবুল আমাদের আস্থা, বিশ্বাসের বাতিঘর।

কি চমৎকার উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন এলাকার প্রিয় জননায়ক মাহাবুব আলম বিশ্বাস।

এত দিন ধরে তার কর্ম দক্ষতা সৎ, সাহসী নির্ভীক গুনের কারনে যে আস্থা, বিশ্বাস, ভালোবাসা, দায়িত্ববোধ, বন্ধুত্বের বিজ মানুষের মাঝে বপণ করেছিল। আজ শেকর হয়ে তা মানুষের হৃদয়ের অনেক গভীরে প্রবেশ করেছে। সেই সাথে তাদের মাঝে আস্থা, বিশ্বাস, ভালোবাসা বন্ধুত্ব আজ শিখরের চুড়ায় অবস্থান নিয়েছে।

আজকের জনসমাবেশে সর্ব শ্রেনীপেশার ব্যক্তি থেকে শুরু করে একদম সাধারণ মানুষেরা উপস্থিত হয়ে আরেকবার তা প্রমান করে দিলো।

আজ শুক্রবার সন্ধ্যার পর ছোট পরিসরের আলোচনা ও মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু মতবিনিময় সভা রূপ নেয়।
সমাবেশে বিভিন্ন শ্রেণীপেশার
মানুষের উপস্থিতি বাড়তে বাড়তে বড় সড় সমাবেশের রূপ পায়।

আলহাজ্ব মাহাবুব আলম বিশ্বাস কে শুধু নয়, ভেড়ামারাবাসীকে ৫নং ওয়ার্ডের জনতা আজ বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাকে মানুষ কতটা ভালোবাসে, সে কতটা জনপ্রিয়। তার বিকল্প শুধু সে নিজে। একথা জনতাই বুঝিয়ে দিলো।

আজ শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টায় গোডাউন মোড়ে আলোচনা ও মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, পৌর ৫নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি খায়রুল ইসলাম, সহসভাপতি সুলতান শেখ, সাধারণ সম্পাদক গোলাম গাউস মানু, সহ সাধারণ সম্পাদক মাসুদ ড্রাইভার এসময় তারা বলেন,

পরিক্ষিত বন্ধু, সহকর্মী মাহাবুব আলম আমাদের ওয়ার্ডের গর্ব শুধু নয়, সে ভেড়ামারার গর্ব। তিনি প্রমান করেছেন সততা দক্ষতা কি। এবারও বিপুল ভোটের জয় ওয়ার্ডবাসী তাকে উপহার দেবে।

সাবেক প্রধান শিক্ষক রুহুল ইসলাম, বক্কার, রকেট, আজিজ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক
মাসুদ পারভেজ,দরবেশ, সঞ্জয়, আজিজ এরা বলেন, এলাকায় শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে মাহাবুল আলম বিশ্বাস কে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে। এলাকাবাসী ও আমরা সবাই মিলে এলাকায় সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি করেছি।

কোন অশুভ শক্তি যেন এ শান্ত পরিবেশ কে
অশান্ত করতে না পারে। সচেতন নাগরিকরা ভোটের মাধ্যমে তা প্রতিহত করবে।

শাওন আফরিন জয় আমজাদ হোসেন, ভেড়ামারা কলেজের কম্পিউটার শিক্ষক মোঃ মাহাবুল ইসলাম, জিয়া,স্বপন, মিরাজ, নজরুল, শুকচাঁদ, শিহাব, রাজু, টোকন, মানিক, রিমন, শাকিল, নাহিদ, অপু, ঈমন, জীথ ও শিশির। এরা শ্লোগান, শ্লোগানে জবাব দেন, আমরা আছি শত ভাই মাহাবুব আলম তোমার ভয় নাই।
৫নং ওয়ার্ডে সন্ত্রাস, রাহাজানির জায়গা নয়, ভোটে মোদের হবে জয়।

এছাড়াও ভেড়ামারায় তারুণ্যের দীপ্ত ছড়ানো এক ঝাঁক উদীয়মান আশা জাগানিয়া নতুন-নতুন সৃষ্টিশীল ব্যবসার উদ্যোক্তা- শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত করে আলোচনা সভায় যোগদান করেন, সেই সাথে আলোচনা সভা রূপ নেয় সমাবেশে।
এরা হলো- বাবু, অনিক তুহিন শরীফ তিতাস, হাসান, ইভান, তারিক, অর্ক, আদিফ শামিম সহ আরও অনেকেই।

💌৫/৬ বছরের ছোট্ট মিষ্টি মেয়ে ‘লুফছা’ তার নিস্পাপ কচি হাতে একগুচ্ছ ফুলের তোঁড়া দিয়ে ওয়ার্ডবাসীর জনপ্রিয় কাউন্সিলর মাহাবুব আলম বিশ্বাস কে বরণ করেন। যা ঐ আলোচনায় উপস্থিতিদের মাঝে ভালোবাসার ঢেউ খেলে যায়।

এছাড়াও এলাকার সচেতন সুধী অনেক গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উপস্থিতি স্থানীয় ব্যাক্তিবর্গ ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা কাউন্সিলর আলহাজ্ব মাহাবুব আলম বিশ্বাসের প্রতি পুর্ন আস্থা রেখে নির্বাচনে তার পক্ষে এবারও প্রচারণায় অংশ নিয়ে
বিগত দিনের চেয়ে বড় বিজয় উপহার দিবেন বলে সকলেই মত পোষণ করেন।

কাউন্সিলর মাহাবুব আলম বিশ্বাস বলেন, অপশক্তির আঘাত আসলে আমি আমার বুক পেতে দিয়ে আপনাদের রক্ষা করবো।
আপনাদের কেও আঘাত করতে আসে, তার জবাব হবে ভয়ানক।

আমি আপনাদের সেবক, বন্ধু হয়ে বেঁচে থাকতে চায়।

আমার চাওয়া-পাওয়া একটাই, শুধুমাত্র আপনাদের ভালোবাসা, এটুকুই।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....




Archives

এক ক্লিকে বিভাগের খবর