মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
আল সালেহ লাইফ লাইনের ভালোবাসার উপহার গরিব দুস্হ অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্যসহায়তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জননেতা হানিফ এমপির সুস্বাস্থ্যতা কামনা ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠান বাঁশখালী বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে ক্ষোভ প্রকাশ ও শাস্তির দাবী জানান কুষ্টিয়া শাখার জাতীয় গণফ্রন্ট ভেড়ামারায় পদ্মা নদীতে গোসল করতে নেমে স্কুলছাত্র ডুবে গিয়ে নিহত। ভেড়ামারা উপজেলা প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে ৩শত শ্রমিক ধান কাটতে নাটোরে ভেড়ামারায় ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে চাঁদা দাবীর অভিযোগে যুবলীগ নেতা শরিফুজ্জামান সুমন গ্রেফতার; মামলা দায়ের। কুমারখালীতে হাত পা বাঁধা কৃষকের লাশ উদ্ধার কুমারখালীতে ভিক্ষুককে পিটিয়ে হত্যা, থানায় মামলা দৌলতপুর সীমান্তে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক দৌলতপুরে লকডাউনের তৃতীয় দিন রাস্তার মোড়ে মোড়ে কঠোর অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী
ঘোষনা :
আন্দোলনের ডাক ডটকমে আপনাকে স্বাগতম , সর্বশেষ সংবাদ জানতে  আন্দোলনের ডাক ডটকমের সাথে থাকুন । আন্দোলনের ডাক ডটকমের জন্য  সকল জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহী প্রার্থীগণ জীবন বৃত্তান্ত, পাসপোর্ট সাইজের ১কপি ছবি ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রসহ ই-মেইল পাঠাতে পারেন। শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ যে কোন বিশ্ববিদ্যালয় হতে স্নাতক পাস এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে অধ্যয়নরত ছাত্র/ছাত্রীগণও আবেদন করতে পারবেন।   আবেদন প্রেরণের প্রক্রিয়াঃ  ই-মেইল: , প্রয়োজনে মোবাইলঃ  

ঝিনাইদহে সাংবাদিককে অপহরণ করে হত্যার চেষ্টা: হাত-পা বাধাবস্থায় উদ্ধার

এইচ,এম ইমরান : / ৯৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৫১ পূর্বাহ্ন

ঝিনাইদহে সাংবাদিককে অপহরণ করে হত্যার চেষ্টা: হাত-পা বাধাবস্থায় উদ্ধার

এইচ এম ইমরান :
ঝিনাইদহে সাংবাদিক মনিরুজ্জামান মনির কে অপহরণ করে হত্যার উদ্দেশ্যে চোঁখ বেধে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে নির্যাতন করেছে মাদক ব্যাবসায়ীরা। হত্যা চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হাত-পা ও চোঁখ-মুখ বেধে ফেলে গেছে রাস্তার পাশে। উদ্ধার করে শৈলকুপা হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্থানীয়রা। সাংবাদিক মনির উপজেলার কাঁচেরকোল গ্রামের আকবর শেখের ছেলে। সে জয়যাত্রা টেলিভিশন ও সময়ের কাগজ পত্রিকার শৈলকুপা প্রতিনিধি।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে কচুয়া বাজার ব্রীজের উপর থেকে চোঁখ বেধে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায় মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী বাহিনী। তাকে হত্যা চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে নির্যাতন শেষে হাত-পা ও চোঁখ-মুখ বেধে মাইক্রোবাস থেকে বুধবার ভোর রাতে ফেলে যায় যায় শৈলকুপা উপজেলার ধাওড়া গ্রামে রাস্তার ধারে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে এ্যাম্বুলেন্সযোগে শৈলকুপা হাসতালে ভর্তি করে।

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার ভোরে শিক্ষার্থীরা রাস্তার ধারে হাত-পা ও মুখ বাধা অবস্থায় রাস্তার পাশে একজনকে পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দিয়ে উঠে। এসময় আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তার বাধন খুলে দেয়। পরে তার পরিচয় জানতে পারে যে, সে একজন সাংবাদিক। পরে এ্যামবুলেন্স ডেকে তাকে শৈলকুপা হাসপাতালে ভর্তি করে।

নির্যাতিত সাংবাদিক মনিরুজ্জামান মনির জানায়, কাঁচেরকোল ইউনিয়নের মাদক স¤্রাট ডিশ বাবু, জাহাঙ্গীর ও বিল্লালসহ বেশ কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ীর মাদক বেচা কেনা ও সেবনের ভিডিও ধারণ করেন তিনি। এরপর মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে একটি সংবাদ প্রকাশ করেন। মাদক ব্যবসায়ীরা ক্ষুব্ধ হয়ে মঙ্গলবার রাতে তাকে কচুয়া বাজারের ব্রীজের উপর থেকে অপহরন করে মাইক্রোবাসে জোর পূর্বক তুলে চোঁখ-মুখ ও হাত-পা বেধে ফেলে। চলন্ত মাইক্রোবাসে অপহরণকারীরা বলতে থাকে আমাদের বিরুদ্ধে নিউজ করার সাহস তোকে কে দিলো। ওদের ভিতর থেকে ডিশ বাবু অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বলে ওকে ফাঁকা মাঠে নিয়ে জবাই করতে হবে। পরবর্তীতে তার উপর শারিরিক নির্যাতনের ফলে সে জ্ঞানহীন হয়ে পড়ে। তার কাছে থাকা ক্যামেরা ও মোবাইল ফোনসহ তারা ছিনিয়ে নেয়।
তিনি আরো জানান, সংবাদ প্রকাশের পর থেকে মাদক ব্যবসায়ীরা বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিলো। অপহরনকারীদের মধ্যে তিনি বেশ কয়েকজনকে চিনতে পেরেছেন। কাঁচেরকোল গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে ইউপি সদস্য ডিশ বাবু, সাদেকপুর গ্রামের মৃত নতো শেখের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন, মধুদাহ গ্রামের তাজো শেখের ছেলে বিল্লাল মিয়া, কাঁচেরকোল গ্রামের মৃত আশাহক মিয়ার ছেলে আশরাফুল মিয়া, করিম মিয়ার ছেলে সোহেল মিয়া ও নুর আলী বিশ^াসের ছেলে স্বপন বিশ^াসসহ অজ্ঞাত ৪/৫ জন এ ঘটনার সাথে জড়িত বলে তিনি দাবী করেন।
বর্তমানে সাংবাদিক মনিরুজ্জামান মনির ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এ বিষয়ে তিনি থানায় মামলা করবেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, কাঁচেরকোল ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইমরান হোসেন ওরফে বাবু মিয়া ডিশ বাবু হিসেবে পরিচিত। এলাকায় গড়ে তুলেছে মাদক সিন্ডিকেট। বর্তমানে তার ছত্রছায়ায় উঠতি বয়সী একদল যুবক মাদকাসক্ত হয়ে এলাকায় চাঁদাবাজি সন্ত্রাসী কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়েছে।
সে ২০১৫ সালে শৈলকুপা থানা পুলিশের এএসআই মনির হাজরা ও একাধিক পুলিশ সদস্যকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে তার বাহিনী। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়। মামলা নং- জিআর ২১৩/১৫।
এছাড়াও ডিশ বাবুর বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলাসহ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর নির্যাতন ও চাঁদাবাজির মামলা রয়েছে, সম্প্রতি সে জেল থেকে বের হয়ে এসে আবারো এলাকায় সকল প্রকার অপকর্মের নেতৃত্ব দিয়ে আসছে।
অবিলম্বে তাকে গ্রেফতার পূর্বক তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবী জানিয়েছে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসী।
শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গী হোসেন জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

Archives

MonTueWedThuFriSatSun
   1234
19202122232425
2627282930  
       
       
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
এক ক্লিকে বিভাগের খবর