শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৭:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
করোণা মোকাবেলায় সচেতন করছে জাসদ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী প্লাবন। কুমারখালীতে কঠোর বিধিনিষেধ বাড়িয়েছে করোনা, নাগরিক কমিটির উদ্বেগ আক্রান্ত-৮৭ কুমারখালীতে একাধিক মামলার আসামীকে গায়েবী মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ পাটগ্রামে অসহায় আব্বাস আলীর চোখের চিকিৎসা খরচ যোগাতে পাশে দাঁড়ালেন মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটি পাটগ্রামে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে প্রতিবেশী শ্বশুর- বউমা উধাও! মিরপুর পৌর এলাকা ৭ দিনের সর্বাত্মক লকডাউন খোকসায় যুদ্ধকালীন সময়ের পরিত্যক্ত গ্রেনেড উদ্ধার হয়েছে। সাধারণ জনগণকে বোকা বানিয়ে অর্থনৈতীক শোষণ করা হচ্ছে না তোঃপ্লাবন। মেহেরপুরে High flow oxygen canal উপহার দেওয়াই প্লাবনের শুভেচ্ছা পরিবর্তনের মেহেরপুরের এ্যাডমিন সাইদুর রহমান এর সাথে সহমত পোষণ করলেনঃপ্লাবন।
ঘোষনা :
আন্দোলনের ডাক ডটকমে আপনাকে স্বাগতম , সর্বশেষ সংবাদ জানতে  আন্দোলনের ডাক ডটকমের সাথে থাকুন । আন্দোলনের ডাক ডটকমের জন্য  সকল জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহী প্রার্থীগণ জীবন বৃত্তান্ত, পাসপোর্ট সাইজের ১কপি ছবি ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রসহ ই-মেইল পাঠাতে পারেন। শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ যে কোন বিশ্ববিদ্যালয় হতে স্নাতক পাস এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে অধ্যয়নরত ছাত্র/ছাত্রীগণও আবেদন করতে পারবেন।   আবেদন প্রেরণের প্রক্রিয়াঃ  ই-মেইল: , প্রয়োজনে মোবাইলঃ  




ফলোআপ- ভেড়ামারায় মন্দিরে নিন্মমানের নির্মাণ ভেঙে পুনরায় নির্মাণের নির্দেশ

কুষ্টিয়া অফিসঃ / ১৭৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৭:০১ অপরাহ্ন




ফলোআপ-
ভেড়ামারায় মন্দিরে নিন্মমানের নির্মাণ ভেঙে পুনরায় নির্মাণের নির্দেশ

বাবলু মোস্তাফিজ ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া)প্রতিনিধি-২৭/০৪/২১ইং।

কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় লক্ষ্মী মন্দির নির্মাণে নিন্মমানের কাজের অভিযোগ উঠায় ভেঙে পুনরায় নির্মাণের নির্দেশ দিয়েছে হিন্দু বৌদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্ট। মঙ্গলবার বিকালে হিন্দু বৌদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্টের নেতৃবৃন্দ অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে তাদের প্রতিনিধি উপস্থিত হয়। এসময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি উপজেলার
এলজিইডির এসও কল্পনা রানী
বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ ভেড়ামারা উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সবার সামনে নিন্মমানের কাজের প্রমাণ পাওয়া যায়। এসময় সিডিউলের বাইরে নির্মাণাধীন কাজ ভেঙে পুনরায় নির্মাণের নির্দেশ দেওয়া হয়। গতকাল বুধবার সকালে ভেঙে ফেলা শুরু হয় সিডিউলের বাইরের সব নির্মাণ কাজ।
এবিষয়ে বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদের ভেড়ামারা শাখার সহ-সভাপতি মহাদেব কুন্ডু নিন্মমানের নির্মাণ কাজ হচ্ছে অভিযোগ করে আসছিলেন।
তিনি বলেন, ভেড়ামারা মধ্য বাজারে অবস্থিত লক্ষ্মী মন্দির নির্মাণ কাজ নিন্মমানের ও কনস্ট্রাকশন নকশা বহির্ভূত ভাবে করছে ঠিকাদার সালিম হোসেন। এর সাথে কাজ বুঝে নিতে তদারকির দায়িত্বে ছিলেন জগৎ জননী মাতৃ মন্দিরের পুজা উদযাপন কমিটির দুইজন বিতর্কিত ব্যক্তি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অসিম রায় ও সাধারণ সম্পাদক কার্তিক কুন্ডু। এদের যোগসাজশে ঠিকাদার সিডিউলের বাইরে গিয়ে নিন্মমানের কাজ করছিলেন। এভাবেই শ্মশান ঘাটের কাজও নিন্মমানের হয়েছে। সেটিও ভেঙে ফেলে পুনারায় নির্মান ও এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানাচ্ছি।
জগৎ জননী মাতৃ মন্দির পুজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক কার্তিক কুন্ডু বলেন আমি অত বুঝি না। ওরা করছে ভালোই করছে এটাই মনে করেছি। কমিটির সকলকে এ বিষয়ে না জানিয়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আপনি দুজনে মিলে সব কিছু করছেন এমন অভিযোগ তুলেছে কমিটির বাকী সদস্য এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এটা ঠিক না আমি যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপকে ডেকেছি তবে কাজ শুরু হওয়ার পর। কাজটা বুঝে নিতে।

জগৎ জননী মাতৃ মন্দির পুজা উদযাপন কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক প্রদীপ সরকার বলেন, কমিটির কারও সাথে আলোচনা বা মিটিং না করেই তারা কাজ করাচ্ছিলো। যখন অভিযোগ উঠেছে, তখন আমাকে ডেকে ঠিক আছে কিনা দেখতে বলে সাধারণ সম্পাদক কার্তিক কুন্ডু। অথচ সিডিউল ও নকশা দেখাতে গড়িমসি করে ঠিকাদার সালিম হোসেন। কাজ বুঝে নেওয়ার জন্য যারা নিজেরাই একাজ তদারকি করাচ্ছিলো তাদেরকেই এ দায় নিতে হবে। দুর্নীতি করে ধরা পড়ার পর ডাকলে, যেয়ে এ দায় নেব কেন।
পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর খসরুজ্জামান ফারুক বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের অনুরোধে মন্দিরে যায়। গিয়ে নিন্মমানের কাজের সত্যতা মিলে।
সিদ্ধান্ত হয় ভেঙে নতুন করে সিডিউল মোতাবেক কাজ করতে। ১০মিলি রড দেওয়া হয়েছিল এখন ১৬মিলি রড ও ফাউন্ডেশনের গভীরতা বাড়ানো রডের মাপ পরিবর্তন হয়েছে।

ভেড়ামারা উপজেলার এলজিইডির এসও কল্পনা রানী বলেন, সিডিউল না মেনেই নিন্ম মাপের ১০ মি.মি রড ও ফাউন্ডেশনের গভীরতা কম দিয়ে মন্দির নির্মাণ করছিল। ভেঙে পুনরায় সিডিউল মোতাবেক কাজ করার নিদর্শনা দিয়েছে হিন্দু বৌদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্টের এ প্রকল্পের নেতৃবৃন্দ।

মন্দির নির্মাণের ঠিকাদার সালিম হোসেন নিন্মমানের কাজ হচ্ছিল স্বীকার করতে নারাজ। তার দাবি সিডিউল মেনেই কাজ করছিলাম। পরে তারা নতুন সিডিউল দিয়েছে। তাই সব ভেঙে ফেলে পুনরায় নতুন সিডিউলে নির্মান করছি। এখানে আমার কোন দোষ নেই।
এ বিষয়ে হিন্দু বৌদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্টের সমগ্র বাংলাদেশের সনাতন ধর্মালম্বীদের মন্দির ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান উন্নয়ন ও সংস্কারের প্রকল্প পরিচালক ( অতিরিক্ত সচিব) রঞ্জিত কুমারকে মুঠোফোনে কাজের ঠিকাদার সালিম হোসেনের বক্তব্যের সত্যতা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঠিকাদার মিথ্যা বলছে। তাকে লেআউট ডিজাইন, সিডিউল দেওয়া হয়েছে। সে ভাবেই ঠিকাদার কাজ করবে। নকশার কোন পরিবর্তন করা হয়নি। নতুন সিডিউলও দেওয়া হয়নি। বিষয়টি আমরা শুনেছি ভেঙে পুনরায় নির্মাণ করতে বলা হয়েছে। না হলে কোন বিল পাবে না।
ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র আনোয়ারুল কবির টুটুল বুধবার দুপুরে নির্মাণ স্থান পরিদর্শন করেন। তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের সকলকে উত্তেজিত না হয়ে শান্ত থাকতে বলেন। যারা জড়িত তদন্ত করে বের করা যাবে। এখন কাজ নতুনভাবে নির্মাণ হচ্ছে। সিডিউল অনুযায়ী কাজ বুঝে নিতে হবে। এর জন্য সব রকম সহযোগিতা করা হবে।

উল্লেখ, হিন্দু বৌদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে জগৎ জননী মাতৃ মন্দির, মধ্য বাজারের লক্ষ্মী মন্দির ও শ্মশান ঘাট নির্মাণে ৩০লক্ষ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে।
ভেড়ামারা মধ্য বাজারের লক্ষ্মী মন্দির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। তিনটি কাজই পায় ঠিকাদার সালিম হোসেন। এরমধ্যে মন্দিরের নির্মাণ কাজ শুরু হলে নিন্মমানের হচ্ছে ও কনস্ট্রাকশন নকশা বহির্ভূত কাজ হচ্ছে এমন অভিযোগ উঠে। অভিযোগ উঠায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে।
বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ ভেড়ামারা উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিন্মমানের কাজ দেখে প্রতিবাদ করেন। এসব বিষয়ে হিন্দু বৌদ্ধ কল্যাণ ট্রাস্ট ও কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দকে বিস্তারিত জানানো হয়। তারা প্রতিনিধিকে ঘটনাস্থলে পাঠান এবং সত্যতা নিশ্চিত হয়। ঠিকাদারকে শিডিউল অনুযায়ী পুনরায় মন্দির নির্মাণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....




Archives

এক ক্লিকে বিভাগের খবর